Breaking News

বাতের ব্যথা থেকে মুক্তির ঘরোয়া উপায়-Arthritis pain

  বাতের ব্যথা থেকে মুক্তির ঘরোয়া উপায় 

বাতের ব্যথা থেকে মুক্তির ঘরোয়া উপায়

বাতের ব্যথা থেকে মুক্তির ঘরোয়া উপায় - ভালো করে খোঁজ নিলে দেখা যাবে প্রায় প্রতিটি পরিবারেই একজন ঘরে বাতের ব্যথায় আক্রান্ত রোগী পাওয়া যাবে। সব মিলিয়ে ১০০ রকমের বাতের ব্যথা রোগী পাওয়া যায়।  তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই বাতজনিত ব্যথাকে অন্যান্য রোগের প্রাথমিক লক্ষণ হিসেবে ধরা হয়।  আবার এমনটাও দেখা যায় বাত বংশগতভাবে হয়ে থাকে।  ডাক্তার বাতের ব্যাথায় অষুধ দিলেও সে সব ওষুধের নানা ধরনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হওয়ায় ঘরোয়া ভাবে এর উপশম করাই শ্রেয়।

বাতের ব্যথা থেকে মুক্তির ঘরোয়া উপায় গুলো জেনে নিন ঃ

আদা ঃ  চীনা ও ভারতে ২৫ হাজার বছর থেকে আদা কে  ব্যথা উপশমকারী হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে. প্রতিদিন ১ থেকে ২ কাপ আদা চা খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলতে পারলে আপনার বাতের ব্যথা অনেকাংশে কমে আসবে। 


 গরম পানি দিয়ে গোসল করা  ঃ  আপনার যেকোনো ধরনের ব্যথা কমাতে গরম পানির তুলনা হয়না। সেই সূত্র ধরে বাতের ব্যথা কমাতে আপনি গরম পানি দিয়ে গোসল করতে পারেন। যারা অতিরিক্ত বাতের ব্যথায় আক্রান্ত তারা নিয়মিত গরম পানি দিয়ে গোসল করে দেখুন ব্যথা কমে যাবে। 


পেপার্মিন্ট ঃ  আমরা অনেকেই জানি যে পেপারমেন্ট মাথা ও দাতের ব্যাথায় দারুণ কাজে দেয়।  কিন্তু অনেকেই জানেন না যে এটি বাতের ব্যাথার কষ্ট কমাতেও খুব কাজ করে। তাজা পাতা শুকিয়ে দুই তিনটি পাতা দুই কাপ পানি দিয়ে কমপক্ষে .১৫ মিনিট গরম করে সেটিকে একটা পরিমাণে পানি পান করুন। দেখবেন আস্তে আস্তে আপনার বাতের ব্যথা কমে আসবে।





দারুচিনি ও মধু ঃ দারুচিনি ও মধু সম্মিলিত উপাদান বাতের ব্যথায় খুব কার্যকরী। ১ টেবিল চামচ মধু ও হাফ টেবিল চামচ দারুচিনির পাউডার এক কাপ গরম পানিতে মিশিয়ে প্রতিদিন নাস্তার আগে গ্রহণ করলে বাতের ব্যথা কমে যাবে। আপনার ব্যথার পরিমাণ অনুযায়ী দারুচিনি এবং মধুর মাত্রা বাড়াতে পারেন।


হলুদ: বাতের ব্যথার অন্যতম সহজলভ্য ঘরোয়া প্রতিষেধক হলো হলুদ। এটি এমন একটি উপাদান যা সবার বাড়িতেই পাওয়া যায়। কিছু সমীক্ষায় দেখানো হয়েছে হলুদের ব্যাথা বিরোধী ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট বৈশিষ্ট্যসমূহ বাতের ব্যথার উপর সরাসরি কাজ করে।


 ওমেগা ফ্যাটি এসিড সমৃদ্ধ খাবার: বাতের ব্যথা এবং প্রদাহজনিত সকল ধরনের সমস্যা দূর করতে অনেক বেশি উপযোগী ওমেগা ফ্যাটি এসিড সমৃদ্ধ খাবার। গবেষণায় দেখা যায় ওমেগা ফ্যাটি এসিড নানা উপাদান এর পরিবর্তিত হয়ে যায় যা প্রদাহ এবং বাতের ব্যথা দূর করতে সাহায্য করে


ব্রোকলিঃ  গবেষণার পরীক্ষায় দেখা যায় ব্রকলির রয়েছে সালফোরাফেন নামক একটি উপাদান যা হাড়ের জয়েন্ট গুলোর ব্যথা ও ক্ষয় হওয়া প্রতিরোধ করে।


স্ট্রবেরি ঃ এই সুপার ফলটি অনেক সমস্যার পাশাপাশি বাতের ব্যাথার মত সমস্যার সমাধান করতে সক্ষম। স্ট্রবেরি রক্তের সি রিয়াক্টিভ প্রোটিন কমে যাওয়ার ফলে দেহের প্রধান যোনিতে ব্যথা দূর করে।


পুদিনা পাতা ঃ পুদিনা পাতায় মেন্থল নামে একটি উপাদান আছে যা ধনুষ্টংকার রোগ প্রতিরোধে কার্যকরী ভূমিকা পালন করে। এছাড়া এর তেল পায়ের গোড়ালিতে ব্যথা উপশম হয়।


No comments