Breaking News

অর্শ বা পাইলস ঃ কারণ লক্ষণ ও করণীয়-Hemorrhoids or Piles, Causes,Signs and symptoms and Treatment

অর্শ বা পাইলস ঃ  কারণ লক্ষণ ও করণীয়-Hemorrhoids or Piles, Causes,Signs and symptoms and Treatment

অর্শ বা পাইলস :  কারণ লক্ষণ ও করণীয়- Hemorrhoids or Piles, Causes,Signs and symptoms and Treatment


 অর্শ বা পাইলস কি? What is Piles ?

মলাশয় নিম্নাংশ মলদ্বারের শিরাগুলো ফুলে  গেলে সে গুলোকে অর্শ বা পাইলস (Piles) বলে। এই অর্শ মলদ্বারের অভ্যন্তরে ও হতে পারে আবার বাহিরে ও হতে পারে।

 অর্শ বা পাইলস (Piles) কেন হয়( ওরশের কারণসমূহ) :

অর্শ বা পাইলসের  (Hemorrhoids or Piles)সঠিক কারণ জানা না গেলেও নিম্নলিখিত বিষয় সমূহ অর্শ হওয়ার ক্ষেত্রে ভূমিকা রাখেঃঃ 

১. দীর্ঘমেয়াদি কোষ্ঠ-কাঠিন্য বা ডায়রিয়া। 

২. শাকশব্জি ও অন্যান্য আঁশযুক্ত খাবার এবং পানি কম  খাওয়া ।

৩. শরীরের অতিরিক্ত ওজন হওয়া।

৪. গর্ভাবস্থা।

৫. লিভার সিরোসিস। 

৬. মল থেকে বেশি বেশি চাপ দেওয়া। 

৭. অতিরিক্ত মাত্রায় লেকজেটিভ ব্যবহার করা বা এনেমা গ্রহণ করা।

৮. টয়লেটে বেশি সময় ব্যয় করা। 

৯. বৃদ্ধ বয়স। 

১০. পরিবারে কারও পাইলস থাকা।

১১. ভারোত্তোলন বা দীর্ঘ সময় বসে থাকা ইত্যাদি। 


অর্শ বা পাইলস ঃ  কারণ লক্ষণ ও করণীয়-Hemorrhoids or Piles, Causes,Signs and symptoms and Treatment


অর্শ বা পাইলস (Piles)হলে কিভাবে বুঝব ?Hemorrhoids or Piles

i) মলদ্বারের অভ্যন্তরে হলে নিচের লক্ষণগুলো দেখা যেতে পারেঃ

১. পায়খানার সময় ব্যথাহীন রক্তপাত হওয়া।

২. মলদ্বারের ফোলা বাহিরে বের হয়ে যেতে পারে। আবার নাও পারে। যদি বের হয় তবে তো নিজেই ভিতরে চলে যায় অথবা হাত দিয়ে ভিতরে ঢুকিয়ে দেওয়া যায়। কখনো কখনো এমন ও হতে পারে বাহিরে বের হওয়ার পর তা আর ভিতরে প্রবেশ করানো যায় না। ভিতরে প্রবেশ করানো গেলে তা আবার বাইরে চলে আসে। 

৩. মলদ্বারে জ্বালাপোড়া, যন্ত্রণা, বা চুলকানি হওয়া।

৪. কোন কোন ক্ষেত্রে মলদ্বারে প্রচুর ব্যথা অনুভব করা।


ii) মলদ্বারের বাহিরে চলে নিচের লক্ষণগুলো দেখা যেতে পারে:

১.মলদ্বারের বাইরে ফুলে যাওয়া বা হাত দিয়ে স্পর্শ অনুভব করা যায়।

২. কখনো কখনো রক্তপাত বা মলদ্বারে ব্যথা হতে পারে।

অর্শ বা পাইলস (Piles) রোগে করণীয়:Hemorrhoids or Piles

১.  কোষ্ঠকাঠিন্য যেন না হয় সে বিষয়ে সতর্ক থাকা এবং নিয়মিত মলত্যাগ করা। 

২. পর্যাপ্ত পরিমাণে শাকসবজি ও অন্যান্য আঁশযুক্ত খাবার খাওয়া এবং প্রচুর পরিমাণে পানি পান করা।

৩. সহনীয় মাত্রার অধিক পরিশ্রম না করা।

 ৪. প্রতিদিন 6 থেকে 8 ঘন্টা ঘুমানো।

৫. শরীরের ওজন নিয়ন্ত্রণ করা।

৬. টয়লেটে অধিক সময় ব্যয় না করা। 

৭. সহজে হজম হয় এমন খাবার গ্রহণ করা।

 ৮. ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়া লেকজেটিভ ব্যবহার গ্রহণ না করা।

 ৯. মলত্যাগে বেশি চাপ না দেওয়া।

১০. দীর্ঘমেয়াদী ডায়রিয়া থাকলে তার চিকিৎসা নেওয়া। 

অর্শ বা পাইলস (Piles)  রোগের গ্রহণীয় কিছু খাবার:Hemorrhoids or Piles

শাকসবজি, ফলমূল, সব ধরনের ডাল, সালাদ, পনির, গাজর, মিষ্টি কুমড়া, লেবু এবং এ জাতীয় টক ফল পাকা পেঁপে, বেল, আপেল, কমলা, খেজুর, ডিম, মাছ, মুরগির মাংস, চাল ও আটা ইত্যাদি।

অর্শ বা পাইলস( Piles) রোগের চিকিৎসা:

i) মলদ্বারের বাহিরের অর্শ বা পাইলস যা  হাতে অনুভব করা যায় তবে ব্যাথা বা রক্তপাত হয় না:

Diosmin 450mg, Hepeidin 50mg এর কম্বিনিশনের তৈরি ট্যাবলেট যা বাজারে Normanal, Hermorif, Daflon, Diohes ইত্যাদি নামে পাওয়া যায়। ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী সেবন করতে হবে।

ii)  মলদ্বারের ভিতরের বা বাহিরের অর্শে বা পাইলস এ  ব্যাথা হলে ঃHemorrhoids or Piles

1. Sitz Bath ( ৮ সে. মি. উচ্চতার কুসুম পানিতে ১৫ মিনিট করে বসে থাকতে হবে। প্রতিদিন প্রয়োজন অনুসারে ২-৪ বার।

2. Over the Counter Hemorrhoid Ointment ev Suppository  দিনে ১-৩ বার ( ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী ব্যাবহার করা, যেমন- 

 Cinchocaine Hemorrhoid Hydrochloride Hydrocortisone Neomycin Sulphate 1 Esculin Sesquihydrate এর কম্বিনিশনে তৈরি - Ointment বাজারে ( Anorel, Anustat) ইত্যাদি নামে পাওয়া যায়।

 3. Paracetamol ১টি করে দিনে ২-৩ বার বরফের টুকরার সাথে গামছা বা অন্য কোন কাপড় দিয়ে পেঁচিয়ে ফোলা যায়গায় লাগালেও ব্যাথা উপশম হয়। 




No comments